July 16, 2019

অনিচ্ছুক সন্তানকে খাওয়ানো

--- ২৩ এপ্রিল, ২০১৩

রেশমা ইয়াসমিন ॥ আরিয়ানার বয়স ৭ বছর। এমনিতে তার সবছিুই ভালো। হাসি-খুশী প্রাণবন্ত একটি শিশু, খুবই মিশুক স্বভাবের। কিন্তু সকাল, দুপুর বা রাতের খাওয়ার সময় হলেই ঘটে যতে বিপত্তি। এ স্বভাবটা তার আমূল পাল্টে যায় মুরগি ভাজা, চিপস, চকলেট বা এ ধরণের হাতেগোনা কিছু খাবার পেলে। কিন্তু এসব হাবিজাবি খেয়ে পেট ভরালে চলবে? মেয়েকে নিয়ে মায়ের টেনশনের শেষ নেই। রাতে তার ঘুমও হয় না ঠিকমতো। এ সমস্যা শুধু আরিয়ানারই নয়, সব বাচাচই হাতেগোনা কিছু খাবার ছাড়া আর কিছু খেতে চায় না। তবে এ সমস্যা কাটিয়ে ওঠার কিছু পথও আছে। সব সময় একই ধরণের খাবার না দিয়ে একটু বৈচিত্র আনুন। নতুন কিছু দিলে হয়তো প্রথম দিন সে খাবে না। কিন্তু একটু ধৈর্য ধরুণ। আপনাদের সেই খাবারটা খেতে দেখলে একদিন, দুদিন, তিনদিন- কতদিন আর সে হাত গুটিয়ে থাকবে? একদিন না একদিন সেই খাবারটা চেখে দেখবেই। খাবার সময়টা আনন্দময় করে তুলুন। এতে আপনার সন্তানের খাওয়ার প্রতি আগ্রহ জন্মাবে। আপনার সন্তান স্কুলে ভর্তি হওয়ার পর বন্ধুদের নতুন নতুন খাবার খেতে দেখলে তারও খাওয়ার রুচিতে আসবে।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

জুলাই ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« মে    
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১