August 21, 2019

আদালতের নির্দেশে জিলা ও সদর গার্লস স্কুলের দু’টি শ্রেনীতে বৃহস্পতিবার ভর্তি পরীক্ষা

--- ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৩

আসমা আক্তার ॥ সরকারি বালিকা (সদর গার্লস) ও বালক (জিলা স্কুল) বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ ও ৭ম শ্রেনীর ভর্তি পরীক্ষা বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে ভর্তি কমিটি ভর্তি সংক্রান্ত সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। বিদ্যালয় দুটিতে ৬ষ্ঠ ও ৭ম শ্রেনীর জন্য নির্ধারিত কোন কোঠা না থাকলে শূন্য কোঠাগুলো পুরন করার জন্যই এ পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে।

সরকারি বালিকা ও বালক বিদ্যালয়ে এ বছর ৬ষ্ঠ শ্রেনীতে ৯৬৪ ও সপ্তম শ্রেনীতে ৪৭৫ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে বলে ভর্তি কমিটি জানিয়েছে। সরকারি দু’টি বিদ্যালয়ে কিন্ডান গার্টেন থেকে পঞ্চম শ্রেনীতে পাশ করা শিক্ষার্থীরা ৬ষ্ঠ শ্রেনীতে ভর্তির সুযোগ পাচ্ছে। উচ্চ আদালের রায়ে এ বছরের সরকারী জিলা ও বালিকা (সদর গার্লস) বিদ্যালয়ে তারা ভর্তির সুযোগ পাচ্ছে। বিগত বছর গুলোতে ওই বিদ্যালয় দুইটিতে কিন্ডারগার্টেন থেকে পঞ্চম শ্রেনীতে পাশ করা শিক্ষার্থীরা ভর্তির সুযোগ পেতো না।

জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাবিনা ইয়াছমিন বলেন আদালতের রায় অনুযাযী ভর্তি পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। আশা করছি কোন সমস্যা হবে না।

সদর গার্লস স্কুলের প্রধান শিক্ষক মাহবুবা হোসেন জানান, গত বছর দু’টি স্কুলের ৬ষ্ঠ শেনীতে আবেদনকারী ৪৫০ শিক্ষার্থীকে ৭ম শ্রেনীতে ভর্তি পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ করে দেয়া হচ্ছে।

কিন্ডার গার্টেন ঐক্যপরিষদের আহবায়ক শাহেদা আখতার জানান, ভর্তি পরীক্ষার জন্য আগে ফরম সংগ্রহ করতে পারতো না। কিন্তু এবছরে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ হয়েছে। আমারা রীটে সরাকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর মতো ১০ ভাগ কোটা সংরক্ষনের জন্য আবেদন করেছি। এখন কোটা আদায়ের দাবী করা হবে।

ফেইসবুকে আমরা