May 19, 2019

আস্তফল ডায়াবেটিসে উপকারী

--- ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৩

মাসুদ আমিন ॥ গোটা ফল ডায়বেটিসের ঝুঁকি কমাতে ভূমিকা রাখে। বিপরীতে বেশি পরিমাণ ফলের জুস টাইপ-টু ডায়াবেটিসের আশঙ্কা বাড়িয়ে দেয়। গত ২৫ বছরের আলাদা তিনটি গবেষণার ফল সমন্বয় করে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন ও সিঙ্গাপুরের একদল গবেষক এসব তথ্য জানিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন পেশার এক লাখ ৮৭ হাজারেরও বেশি মানুষ এ গবেষণায় অংশ নেয়। তাদের খাদ্যাভ্যাস, ওজন, ধূমপানের অভ্যাস, শরীর চর্চাসহ জীবনযাত্রার বিভিন্ন বিষয়ে লক্ষ রাখা হয়।

গবেষকরা জানান, গবেষণায় অংশ নেওয়ার সময় যেসব ব্যক্তি মাসে একবার বা তার চেয়েও কম বার ফল খেয়েছে, তাদের তুলনায় যারা সপ্তাহে অন্তত দুবার ফল খেয়েছে, তাদের শরীরে টাইপ-টু ডায়াবেটিস হওয়ার আশঙ্কা ২৩ শতাংশ কমেছে। এসব ফলের তালিকায় রয়েছে ব্লুবেরি, আপেল ও আঙুর। অন্যদিকে যারা প্রতিদিন এক বা একাধিকবার ফলের রস খেয়েছে, তাদের ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বেড়েছে ২১ শতাংশ। সপ্তাহে তিনবার ফলের রস খাওয়ার পরিবর্তে যারা আস্ত ফল খেয়েছে, তাদের এ রোগের ঝুঁকি কমেছে ৭ শতাংশ।

যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি অব পাবলিক হেলথের সহকারী অধ্যাপক জানান, আস্ত ফলের পরিবর্তে রস খাওয়ার কারণে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়ার বিষয়টি এখন আমাদের কাছে পরিষ্কার। পুষ্টিগুণ এক হলেও শক্ত খাবারের চেয়ে তরল খাবার অনেক দ্রুত পাকস্থলী থেকে অন্ত্রে পৌঁছায়। আস্ত ফলের তুলনায় ফলের রস অনেক দ্রুত রক্তে গ্লুকোজ আর ইনসুলিনের মাত্রায় পরিবর্তন আনে। এ কারণেই ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

মে ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« এপ্রিল    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১