কীর্তনখোলার দখল-দুষন ঠেকাতে মাঠে নেমেছে বরিশাল নদী বন্দর কর্তৃপক্ষ

কীর্তনখোলার দখল-দুষণ ঠেকাতে মাঠে নেমেছে বরিশাল নদী বন্দর কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার বিআইডব্লিউটিএ’র বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্তা আজমল হুদা মিঠু সরকারের নেতৃত্বে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও নৌ-বন্দর সংলগ্ন নদীর তীরে ময়লা-আবর্জনা অপসারণ করা হয়। প্রায় শতাধিক শ্রমিক নিয়োগ করে দিনব্যাপী এ অভিযানে প্রায় অর্ধশত স্থাপনা ও ভাসমান দোকান উচ্ছেদ করা হয়।
বিআইডব্লিউটিএ’র বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্তা আজমল হুদা মিঠু সরকার জানান, লঞ্চ থেকে নদীতে ময়লা-আবর্জনা না ফেলতে মৌখিকভাবে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কেউ এই আদশে অমান্য করলে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। কীর্তনখোলা দখল ও দুষণমুক্ত করতে শুরু হওয়া এই কার্যক্রম চলমান থাকবে বলে জানান তিনি।
এদিকে বরিশাল নদী বন্দর সংলগ্ন বহুমুখী সিটি মার্কেটের কাঁচা বাজারে বুধবার রাতে আকস্মিক অভিযান চালায় বিআইডব্লিউটিএ। অভিযানে ৭টি অবৈধ দোকান উচ্ছেদ সহ ক্যারাম খেলার নামে জুয়ার আসর বন্ধ করে দেয়া হয়। এছাড়াও ভিডিও গেমসের দোকান সিলগালা সহ বাজার সংশ্লিস্ট এলাকার নদীর দখল ও দুষণ ঠেকাকে নানান পদক্ষেপ গ্রহন করেন নদী বন্দর কর্মকর্তা।