September 23, 2018

গরমে সুস্থ থাকতে

--- ২৯ মার্চ, ২০১৪

মাসুদ আমিন ॥ গ্রীষ্মকালের গরমে অস্থির জনজীবন। রোদের প্রখরতায় ঘর থেকে বের হওয়াই কষ্টকর। কিন্তু নাগরিক জীবনের ব্যস্ততায় সে সুযোগ কোথায়? তাই যেমনি ঘরে বসে থাকা যাবে না ঠিক তেমনি গরমে অসুস্থ হওয়াও চলবে না। এই অবস্থায় একটু সতর্ক হয়ে চললেই রক্ষা পাওয়া যাবে অনেক রোগ থেকে।

গরমে রোদ এড়ানো সম্ভব নয়। তবুও যতটুকু সম্ভব তা এড়িয়ে চলুন। রোদে বেরোতে বাধ্য হলে ছাতা ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রে কালো ছাতা এড়িয়ে চলুন।

ভারী কাপড় পরিধান না করাই ভালো। এ সময় সুতি কাপড়কে প্রাধান্য দিতে পারেন। সিল্ক, গর্জেটসহ অন্যান্য পোশাক পরিহার করুন।

প্রচন্ড গরমে শরীরে ঘাম ঝড়ে। এক্ষেত্রে বেশি পানি পান করুন। স্যালাইন খাওয়া এ সময় বেশি উপকারি।

বাইরের তেলজাতীয় খাবার পরিহার করুন। তাজা ফলের জুস খেতে পারেন।

বাইরে রোদ থেকে বাসায় ফেরার পরই সঙ্গে সঙ্গেই ফ্যানের নিচে দাঁড়াবেন না কিংবা গোসল করবেন না। কিছুক্ষন বিশ্রাম নিন। এরপর গোসল করে নিতে পারেন। ঠান্ডাজানিত রোগ না থাকলে একাধিকবার গোসল করে নিতে পারেন।

ঘামে ভেজা কাপড় দ্রুত পাল্টে নিন। এতে রোগ থেকে রেহাই পাবেন।

গরমে কোনো অবস্থাতেই বাসি খাবার খাবেন না।

এ সময় ঘামাচির প্রবনতা দেখা যায়। নখ দিয়ে তা চুলকাবেন না। বরং বেশি করে পাউডার ব্যবহার করুন। প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

ঘরের তৈরি খাবার বেশি খাবেন। বাইরে ফেরিওয়ালাদের বিক্রি করা শরবত কিংবা অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে তৈরি করা আখের রস খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০