September 23, 2018

জাপা থেকে রুহুল আমিন হাওলাদার বাদ

--- ১১ এপ্রিল, ২০১৪

দক্ষিনাঞ্চলের এক সময়ের দাপুটে রাজনীতিবিদ বহুল আলোচিত সমালোচিত এমপি এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদারকে শেষ পর্যন্ত জাতীয় পার্টির মহাসচিব পদ থেকে বিদায় করা হয়েছে। সেই এরশাদ আমল থেকে নানান কারনে অকারনে দক্ষিনাঞ্চলের দাপুটে নেতা থেকে জাতীয় পর্যায়ে ফেলে- ফুপে উঠেন এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার।

এরশাদ আমলে মন্ত্রী হওয়ার কারনে বিপুল সম্পদের মালিক হন তিনি। পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা সহ বিভিন্ন এলাকার তার রয়েছে বিশাল সম্পদের পাহাড়। কিন্ত চলাফেরা করেন সাদা মাঠা। ভাবসাবে একে বারেই দূর্বল আয়ের মানুষ। সর্বশেষ অন্তবর্তীকালিন সরকারের কয়েক দিনের জন্য মন্ত্রী হওয়ার সুযোগ পেয়েছিলেন রুহুল আমিন। মন্ত্রীত্ব পাওয়ার সাথে সাথেই পযর্টন কর্পোরেশনের হেলিকপ্টার নিয়ে উড়ে আসেন কুয়াকাটায়। নিজের অবৈধ আয়ে অর্জিত কুয়াকাটার জমির আশে- পাশের লোকজনকে হুমকি ধমকি দিয়ে ব্যাপক সমালোচিত হন। আওয়ামী লীগের সাথে থেকে মন্ত্রীত্ব পাওয়ার খুবই শখ ছিল হাওলাদারের কিন্ত শেষ পর্যন্ত তা হয়নি। বরং উল্টো হলফনামায় মিথ্যা তথ্য প্রদান করে বিশাল সম্পদের কথা গোপন রাখার তার বিরুদ্ধে তদন্তে নেমেছে দুদক। সেই থেকে রুহুল আমি গলার কাটা হয়ে পড়েন এরশাদ, রওশন থেকে শুরু করে পুরো জাতীয় পার্টির জন্য। তাই গত কয়েকদিন যাবত রুহুলকে বিদায় করা হচ্ছে বলে গুঞ্জন চলে আসছিল। শেষ পর্যন্ত বৃহস্পতিবার রুহুল আমিনকে সরিয়ে মহাসচিব হিসাবে দায়িত্ব দেওয়া হয় দীর্ঘ দিনের রাজনীতির পরীক্ষিত ব্যক্তিত্ব জিয়াউদ্দিন বাবলুকে।

ফলে দীর্ঘ দিনের মহাসচিবের দাপট দেখিয়ে বেড়ানো রুহুল আমিন অধ্যায়ের অবসান হলো জাতীয় পার্টি থেকে। নেতা-কর্মীরাও রুহুলের মত দূর্নীতিবাজের বিদায়ে খুব খুশী বলে জানা গেছে।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০