November 19, 2018

বরিশালের ঝালকাঠি-২ আসনের সীমানা নিয়ে দ্বিধাবিভক্তি

--- ২৬ এপ্রিল, ২০১৩

আবুল হাসান মৃধা, নলছিটি  ॥ ঝালকাঠি-২ আসনের সীমানা নির্ধারণ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে দ্বিধাবিভক্তি দেখা দিয়েছে।জানা যায়,ঝালকাঠি-২ (ঝালকাঠি সদর ও নলছিটি) আসন থেকে নলছিটি উপজেলার চারটি ইউনিয়ন ভাগ করে ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঁঠালিয়ায়) নেওয়ার জন্য নিবার্চন কমিশনে আবেদন করে কয়েকজন নাগরিক।ওই আবেদনের বিপরীতে পাল্টা আবেদনও করা হয়  কমিশনে।যার শুনানি আগামী ২৫ এপ্রিল নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে জানা গেছে।
সীমানা নির্ধারণের টানাহেঁচড়ার মধ্যে পড়ে সাধারণ মানুষের মনে ক্ষোভ বিরাজ করছে।ইতিমধ্যে নলছিটি উপজেলা রক্ষা কমিটি নামে একটি সংগঠন ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলন ও জাতীয় প্রেসক্লাবে মানববন্ধন করছে এবং ব্যাপক কর্মসুচী গ্রহন করে।কর্মসুচীর মধ্যে গত ২১ এপ্রিল নলছিটি উপজেলা নিবার্হী কর্মকতা ও উপজেলা নিবার্চন কর্মকতার বরাবরে স্মারকলিপি পেশ করছে।গত ২৫ এপ্রিল ঢাকা নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে।
এ বিষয়ে মোল্লারহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুস সালাম বলেন,‘আমরা কোনভাবেই নলছিটি উপজেলাকে দ্বিখন্ডিত করতে দেব না।’নলছিটি উপজেলা রক্ষা কমিটির আহ্বায়ক মিঞা আহমেদ কিবরিয়া বলেন,ঐতিহ্যবাহী নলছিটি উপজেলাকে রক্ষা করতে যা যা করা দরকার তা হবে। ঝালকাঠি নাগরিক ফোরামের আহ্বায়ক আহমেদ আবু জাফর বলেন,বিষখালি নদী দ্বারা বিছিন্ন ইউনিয়ন চারটিকে রাজাপুর-কাঁঠালিয়ার সাথে একীভূত করা অযৌক্তিক।ঝালকাঠি-২ আমনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু বলেন,নলছিটি থেকে চারটি ইউনিয়ন ভাগ করে রাজাপুর কাঁঠালিয়ার সঙ্গে সম্পৃক্ত করার খবরটি গুজব ছাড়া আর কিছু নয়।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

নভেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« অক্টোবর    
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০