September 26, 2018

বরিশালে টেন্ডারের কাজ ছিনিয়ে নিয়েছে ছাত্রলীগ নেতা

--- ১১ ডিসেম্বর, ২০১৩

স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ১৯২ গ্র“পের (রিপেয়ারিং) কাজের মধ্যে ১০৭ নম্বর কাজটি ছিনিয়ে নিয়েছেন মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ জসিম উদ্দিন। বুধবার দুপুরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশের উপস্থিতিতে নাটকীয় ভাবে ছাত্রলীগ নেতা নিজেই লটারীর গুটি টেনে কাউকে কিছু না দেখিয়ে প্রভাব খাটিয়ে সাড়ে আট লক্ষ টাকার কাজটি বাগিয়ে নেয়।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত একাধিক ঠিকাদাররা অভিযোগ করেন, দুপুরে স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের বরিশাল কার্যালয়ে ১৯২ গ্র“প (রিপেয়ারিং) কাজের লটারী শুরু হলে মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন লটারীর গুটি ঘুরানোর চরকাটি তার দখলে নেন। তিনি ১০৭ নম্বর কাজের জন্য লটারির চরকা নিজেই ঘুরিয়ে গুটি উঠালেও উপস্থিত কাউকে দেখতে দেননি। পরে তিনি দাবি করেন তার জমাকৃত মের্সাস ফিরোজা এন্টারপ্রাইজ কাজটি পেয়েছে। তাৎক্ষনিক এর প্রতিবাদ করেন নির্বাহী প্রকোশলী এফ.এ মোঃ মুরশিদ ও লটারির দায়িত্বে থাকা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তহমিনা পারভীন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন ছাত্রলীগ নেতা জসিম। এসময় ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন থাকলেও তারা নিরব দর্শকের ভুমিকায় ছিলেন। এতে উপস্থিত সাধারন ঠিকাদারদের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যাপারে নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মুরশিদ জানান, জসিম উদ্দিন কতো নম্বর গুটি উঠিয়েছেন তা তিনি দেখেননি। তবে শেষ পর্যন্ত ঐ কাজটি জসিম উদ্দিনকেই দেয়া হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট দপ্তর সূত্র জানিয়েছে।

মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতি জসিম উদ্দিন অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, পুরো ঘটনা বানোয়াট। লটারি সেখানে উপস্থিত ছিলাম। আমার কোনো ঠিকাদারী কাজ নয়। ছাত্রলীগের কর্মীরা সাড়ে ৪ লাখ টাকার এক গ্র“পের কাজ পেয়েছে। যারা লটারি নিয়ে অনিয়ম করতে পারেনি তারাই এসব মিথ্যা প্রবকান্ডা ছড়াচ্ছে।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০