October 23, 2019

বরিশালে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত দুইজনের মৃত্যু

--- ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

উজিরপুর সংবাদদাতা
জেলার উজিরপুর উপজেলার গুঠিয়া ইউনিয়নের দোসতিনা গ্রামের একই বাড়িতে নারী-পুরুষসহ ১৮জন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এরমধ্যে দুইজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। এ ঘটনায় নড়েচড়ে বসেছে স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে জেলা সিভিল সার্জনের নির্দেশে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ডাঃ দেলোয়ার হোসেন বলেন, ওই গ্রামের কয়েকটি বাড়িতে গত আটদিন থেকে ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। এরমধ্যে গত ২৪ সেপ্টেম্বর ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাবিবুর রহমান তালুকদার (৬০) এবং ১৯ সেপ্টেম্বর একই বাড়ির ফজলুল হক তালুকদার (৫০) মৃত্যুবরণ করেছেন। এছাড়া ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে একই বাড়ির মৃত সামছুল হক তালুকদারের স্ত্রী ঝর্ণা বেগম (৬৫), আলমগীর হোসেন তালুকদার (৬০) ও তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম (৪৫), একই বাড়ির রুমা বেগম (৩৮), চার বছরের শিশু নাদিয়া, পারভীন বেগম (৩৮), মনির হাওলাদার (৩৫) বরিশাল সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এছাড়া ওই বাড়ির বাসিন্দা সুলতানা বেগম (৩০), হিরু তালুকদার (৫০), নাবিলা (১৮), আশা (১৪), আফিয়া (৫), সাজিন (১১), মিলন (৩০), ময়না বেগম (৫০) ও সুলতানা বেগম (৩৫) বাড়িতেই প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন। উজিরপুর পৌর সদরে স্বামীর বাড়িতে চিকিৎসাধীন সুলতানা বেগম জানান, তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে তিনিসহ বাড়ির কয়েকজন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হন। পরে তিনি তার স্বামীর বাড়িতে এসে বাসায় বসে চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন।
এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ একেএম শামসউদ্দিন জানান, খবর পেয়ে সার্বিক খোঁজখবর নেয়াসহ বাড়িতে বসে চিকিৎসা নেয়া রোগীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার জন্য বুধবার ওই এলাকায় একজন স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে বরিশালের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মনোয়ার হোসেন জানান, আমরা এখনও নিশ্চিত নই যে ডায়রিয়ার কারণেই মৃত্যু হয়েছে। পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখতে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাসহ আমাদের স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের একটি টিম ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

ফেইসবুকে আমরা