বরিশালে ভুমিদস্যুদের উৎপাতে ভিটা ছাড়া অসহায় পরিবার

হাসিবুল ইসলাম ॥ বরিশাল নগরীর কাশিপুর এলাকার চিহ্নিত ভুমিদস্যু বিমল ব্যাপারীর উৎপাতে বসত ভিটা ছেড়েছে অসহায় একটি পরিবার। শুধু বসত ভিটা ছাড়া করেই ক্ষ্যান্ত হননি তিনি, এখন সন্ত্রাসীদের দিয়ে হুমকি ধামকি দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, আশরাফুল আলমের টিনের ঘরটি দরজায় তালা মারা। বিষয়টি অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে বিমল ব্যাপারী তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে তালা মারিয়েছে। স্থানীয়রাও ঘটনার সত্যতা স¦ীকার করেছে। কিন্তু বিষয়টি অস্বীকার করে বিমল ব্যাপারী বলেন, সে কারো ঘরে তালা মারের নাই । ওইটা যার ঘর সেই তালা মেরেছে। আরো বলেন যে স্থানে ঘর নির্মান করা হয়েছে সেই জমি তার। তবে তার বৈধ কোন দলিল দেখাতে পারেরনি তিনি। জানা গেছে, কাশিপুর এলাকার ইছাকাঠী মৌজার ১১৯/১ খতিয়ানের ৮টি দাগে মোট ১একর ৪০শতাংশ জমির মালিক ছিল হামিদা বেগম। এর কাছ থেকে ১১১৯ ও ১১২০ দাগের সাড়ে ৭দশমিক ৪৪ শতাংশ জমি ক্রয় সুত্রে মালিক হন আশরাফুল আলম। কিন্তু ওই দাগে থাকা জমি ও আরো ৬টি দাগে থাকা ৩৬শতাংশ জমির মালিকানা দাবী করেন বিমল ব্যাপারী। এ নিয়ে উভয় পক্ষের উভয় পক্ষের মধ্যে বেশ কয়েক দিন উত্তেজনা চলে । এসব ভুমিদস্যুদের হাত থেকে রেহাই পেতে আশরাফুল আলমের শ্বশুর আব্দুল কাদের হাওলাদার বিসিসির ২৯ ওর্য়াডের কাউন্সিলর ফরিদ উদ্দিন ও স্থানীয় প্রশাসনকে একাধিকবার  লিখিতভাবে জানায়। কাউন্সিলর ফরিদ উদ্দিন ও স্থানীয় প্রশাসন এর পর এবিষয়ে বিমল ব্যাপারী ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীদের ডাকলে সে কোন কর্নপাত করেনি। বর্তমানে আশরাফুল তার স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে অসহায়ের ন্যায় জীবন যাপন করছে। তাই এবিষয়ে কালবিলম্ব না করে এখনই এসব ভুমিদস্যুদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া দরকার বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।