September 25, 2018

বরিশালে মহানগর ছাত্রদল নেত্রী নাসরিনকে পুলিশ কর্তৃক বর্বর নির্যাতনের অভিযোগ ॥ ৭ দিন পর আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ

--- ১৫ মে, ২০১৩

 বরিশাল টুডে ॥ মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক আফরোজা খানম নাসরিনকে গ্রেফতারেরর ৭ দিন পর আদালতের নির্দেশে বুধবার কোতয়ালী পুলিশ আদালতে হাজির করেছে। ৯ মে হরতাল চলাকালে আফরোজা খানম নাসরিনকে নগরীর চৌমাথা এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। নাসরিন অভিযোগ করেন কোতয়ালী মডেল থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেন ও এসআই মহিউদ্দিন তাকে সেখানে বেধড়ক মারধর করেন। এরপর তারা ভাড়াটিয়া ৩ মাস্তান এনে তার উপর অকথ্য নির্যাতন চালায়। এক পর্যায়ে নাসরিন জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তার স্বামী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতা সাইফুল ইসলামকে খবর দিয়ে ঘটনাস্থলে আনা হয়। সেখান থেকে নাসরিনকে পুলিশ শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে গ্রেফতার দেখানো হয়। চিকিৎসার খরচ সহ সবকিছু চাপিয়ে দেয়া হয় ছাত্রদল নেতার উপর। নির্যাতনের তথ্য তুলে ধরে নাসরিনকে আদালতে সোপর্দ করার দাবী জানিয়ে মহানগর ছাত্রদলের পক্ষ থেকে সাংবাদিক সম্মেলন করে জানানো হয় পুলিশি নির্যাতনে গুরুতর অসুস্থ নাসরিনকে মুক্ত করার জন্য তারা জামিনের প্রার্থনার সুযোগ থেকেও বঞ্চিত হচ্ছেন। কিন্তু তাতেও পুলিশ নাসরিনকে আদালতে সোপর্দ করেনি। গত মঙ্গলবার বিএনপি দলীয় আইনজীবীরা অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে নাসরিনকে হাজির করার আবেদন জানান। ঐ আবেদনে বলা হয় ছাত্রদল নেত্রী নাসরিনকে গ্রেফতার করার ২৪ ঘন্টার মধ্যে আদালতে সোপর্দ না করে কোতয়ালী পুলিশ বে-আইনী ভাবে আটক রেখেছে। অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ২৪ ঘন্টার মধ্যে নাসরিনকে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে হাজির করার নির্দেশ দেন। নির্দেশ পাওয়ার পর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মহিউদ্দিন এ্যাম্বুলেন্সযোগে নাসরিনকে হাসপাতাল থেকে নিয়ে আসেন। এসময় নাসরিনের আইনজীবীরা আদালতকে জানান মামলার এজাহারে তাকে গ্রেফতারের সময় কোনো ধরনের ধস্তাধস্তি বা দৌড়ঝাপের কথা উল্লেখ নেই। অথচ তার ঘাড়, মেরুদন্ড সহ শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থান মারাত্মকভাবে জখম রয়েছে বলে চিকিৎসা পত্রে উল্লেখ রয়েছে। চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নাসরিনকে কারাগারে প্রেরণ করে উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করার জন্য কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছে।  
মহানগর ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আফরোজা খানম নাসরিনের স্বামী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতা সাইফুল ইসলামকে বুধবার আদালত চত্ত্বরে হুমকি দিয়েছে কোতয়ালী মডেল থানার এসআই মহিউদ্দিন। সাইফুল ইসলাম জানান এসআই মহিউদ্দিন তাকে হুমকি দিয়ে বলেন এ সরকার যতদিন ক্ষমতায় আছে ততদিন নাসরিন ও সাইফুলকে দেখে নেয়ার হুমকি দেয় মহিউদ্দিন।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০