April 22, 2019

বরিশালে হত্যা মামলায় তিন জনের ফাঁসি

--- ৭ নভেম্বর, ২০১৩

কায়কোবাদ তুফান ॥ মুক্তিপনের জন্য অপহরণের পর পোল্ট্রি ব্যবসায়ী সুলতান বাদশাকে হত্যা মামলার তিন আসামিকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ড কার্যকর করার আদেশ দিয়েছে আদালত। অপরদিকে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলার অপর তিন আসামিকে খালাস দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার শেষ কার্যদিবসে দ্বিতীয় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এসএম নাসিম রেজা এ দন্ডাদেশের রায় ঘোষণা করেন।

ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্তরা হলো-বরিশাল সদর উপজেলার চরবাড়িয়া ইউনিয়নের লামছড়ি গ্রামের মানিক ফকিরের পুত্র মোঃ বশিরউদ্দিন, মৃত আব্দুল কাদেরের পুত্র মোঃ আনোয়ার হোসেন ও ছাত্তার হাওলাদারের পুত্র মোঃ ইউনুস। রায় ঘোষণার সময় ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত ইউনুস আদালতেই উপস্থিত ছিলেন, অন্য দু’জন পলাতক রয়েছে। মামলার খালাস প্রাপ্তরা হলো-আদম আলী, স্বাগতম হোটেলে ব্যবস্থাপক মোঃ আলতাব হোসেন ও বাবু ইসলাম।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার চরবাড়িয়া ইউনিয়নের লামছড়ি গ্রামের বাসিন্দা সুলতান বাদশা নগরীর পলাশপুরে বসবাস করতো। ২০১০ সালের ১ জুন তাকে প্রতিবেশী বশিরউদ্দিন ও আনোয়ার হোসেন পাওনা টাকা পরিশোধ করার কথা বলে মোবাইল ফোনে ডেকে নগরীর পোর্ট রোডের হোটেল ‘স্বাগতম’-এ নেয়। সেখানে ভাতের সাথে চেতনানাশক দ্রব্য খাইয়ে ব্যবসায়ী সুলতান বাদশাকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়। পরে তার লাশ বস্তাবন্দি করে স্পীডবোটে নিয়ে কীর্তনখোলা নদীতে ফেলে দেয়া হয়।

এ ঘটনার চারদিন পর ৫ জুন কীর্তনখোল নদীর নতুনচর গুচ্ছ গ্রাম সংলগ্ন এলাকা থেকে পুলিশ সুলতান বাদশার লাশ উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় ওইদিন রাতেই নিহতের পিতা আব্দুল মালেক মাঝি বাদি হয়ে আনোয়ার হোসেন, বাবু ও বশিরকে আসামি করে কোতয়ালী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের পর পুলিশ আনোয়ার হোসেনকে গ্রেফতার করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে আনোয়ার হোসেন হত্যার ঘটনা স্বীকার করে ১৬১ ধারায় জবানবন্দি দেয়। পরবর্তীতে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ স্পীডবোট চালক মোঃ জাফর ওরফে জাবেদসহ হত্যাকান্ডের মুল পরিকল্পনাকারী বশির উদ্দিনসহ ৬ জনকে অভিযুক্ত করে কোতয়ালী মডেল থানার এসআই আবু সাইদ ২০১১ সালের ৩০ জুন অভিযোগপত্র জমা দেয়। আদালত ৩৪ স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহন শেষে এ রায় প্রদান করেন।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

এপ্রিল ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« মার্চ    
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০