October 23, 2019

বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ২৪ ঘন্টায় ২ ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু

--- ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

বরিশাল শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (শেবাচিম) ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও এক ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ৮জন ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হয়েছে শেবাচিম হাসপাতালে। বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা ৫০ মিনিটে ডেঙ্গুতে মারা যাওয়া রোগীর নাম সুরাইয়া আক্তার (১৪)। সে বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার পদ্মা গ্রামের বাদল মুন্সির মেয়ে এবং স্থানীয় পশ্চিম হারিটানা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী ছিলো।
হাসপাতালের সংশ্লিষ্ট বিভাগের অধ্যাপক ডাঃ অসিৎ ভূষন দাস জানান, গত ১০ সেপ্টেম্বর রাত ৮ টায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত সুরাইয়া বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডেঙ্গু ওয়ার্ডে ভর্তি হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ বৃহষ্পতিবার সকাল ৭ টার তার মৃত্যু হয়। সুরাইয়ার পিতা বাদল মুন্সী জানান, গত ৬ সেপ্টেম্বর বাড়ীতে বসেই সুরাইয়া জ্বরে আক্রান্ত হলে তাকে পাথারঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে রক্ষা পরীক্ষা শেষে জানাযায় সে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত। তাই সেখান থেকে বরিশালে নিয়ে আসার পর এখানে তাকে দুই ব্যাগ রক্ত দেয়া হয়েছিলো। অতঃপর সে মারা যায়। এর আগে ডেঙ্গু আক্রান্ত বুধবার দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বরিশালের মুলাদী উপজেলার মধ্য চর লক্ষ্মীপুর গ্রামের বাবুল আহমেদ হাওলাদারের ছেলে এবং স্থানীয় চর লক্ষ্মীপুর আদর্শ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেনীর ছাত্র ফরহাদ হোসেন জিহাদের (১৩) মৃত্যু হয়।
শেরে-ই বাংলা মেডিকেলের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলো ৯৯জন ডেঙ্গু রোগী। এর মধ্যে পুরুষ ৩৯জন, নারী ৩৪জন এবং শিশু ২৬জন।
গত ১৬ জুলাই থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ২ হাজার ১৭০জন রোগী। একই সময়ে চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২ হাজার ৬৩জন। এই সময়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৮জন ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হয়েছে শেবাচিম হাসপাতালে।
এ পর্যন্ত বরিশাল বিভাগে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ১৩জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের কার্যালয়।

ফেইসবুকে আমরা