September 25, 2018

বাবুগঞ্জের প্রকল্প অফিসারকে হত্যার হুমকি

--- ৩ জুলাই, ২০১৭

 

✪আরিফুর রহমান॥ বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার প্রকল্প অফিসার সৈয়দা শাহিনা মিথিলাকে হত্যার হুমকি দিয়েছে উপজেলার ওলানকাঠী গ্রামের হারুন অর রশিদের স্ত্রী নাজমুন নাহার বেগম। ঘটনাসূত্রে জানা যায়, হারুন অর রশিদের ওলানকাঠী বাড়ীতে বাবুগঞ্জ উপজেলার প্রকল্প অফিসার সৈয়দা শাহিনা মিথিলা বিগত পাঁচ মাস যাবৎ ভাড়াটিয়া হিসাবে বসবাস করে আসছিলেন। হারুন অর রশিদের ভাড়াটিয়া বাড়ীতে থাকার খাতিরে উপজেলা প্রকল্প অফিসার সৈয়দা শাহিনা মিথিলা অফিসে যাওয়ার সময় তার বাসার তালার চাবী প্রায়ই বাড়ীওয়ালা হারুন অর রশিদের স্ত্রী নাজমুন নাহার বেগম ও ছেলে ইব্রাহীমের কাছে রেখে যেত। কিন্তু গত জুন মাসের ১৫ থেকে ২০ তারিখের মধ্যে যে কোন সময় বাবুগঞ্জ উপজেলার প্রকল্প অফিসার সৈয়দা শাহিনা মিথিলা বাসায় না থাকার সুযোগে এবং তার বাসার চাবী বাড়ীওয়ালা হারুন অর রশিদের স্ত্রী নাজমুন নাহার বেগম ও ছেলে ইব্রাহীমের কাছে থাকায় তালা খুলে বাসায় প্রবেশ করে দুষ্ট প্রকৃতির ইব্রাহীম ওয়ারড্রোপের ভিতরে থাকা বিশ হাজার টাকা, হাত ঘড়ি ইত্যাদি চুরি করে। প্রতিবেশী আবদুল কাদের হোসেনের ছেলে রাশেদ জানান, বাড়ীওয়ালা হারুন অর রশিদের ছেলে ইব্রাহীম একাধিকবার বাবুগঞ্জ উপজেলার প্রকল্প অফিসার সৈয়দা শাহিনা মিথিলা বাসায় প্রবেশ করে বের হয়েছে। এবিষয়ে সৈয়দা শাহিনা মিথিলা বাড়ীওয়ালা হারুন অর রশিদের স্ত্রী নাজমুন নাহার বেগম ও ছেলে ইব্রাহীমের কাছে জানতে চাইলে তারা বিষয়টি ধামাচাপা দিতে ভয়ভীতি দেখিয়ে হত্যার হুমকি দেয়। বাবুগঞ্জ থানায় সাধারন ডায়েরী করেছেন বাবুগঞ্জ উপজেলার প্রকল্প অফিসার সৈয়দা শাহিনা মিথিলা। সাধারন ডায়েরী নম্বর ১১৪৫, তারিখ ৩০/০৬/২০১৭। প্রকল্প অফিসার সৈয়দা শাহিনা মিথিলা জানান, আমি ও আমার পরিবার পরিজন খুব উৎকন্ঠায় দিন কাটাচ্ছি। বাড়ীওয়ালা হারুন অর রশিদের স্ত্রী নাজমুন নাহার বেগম বেগম জানান, আমার স্বামী একজন চাকুরীজিবী, আমার ছেলের নামে মিথ্যা অপবাদ ছড়াচ্ছে। আমি তাকে কোন হুমকি দেই নাই। বাবুগঞ্জ থানার ওসি আবদুস সালাম বলেন, তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।  ###

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« আগষ্ট    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০