April 22, 2019

শ্রমিকের মৃত্যু ॥ অবহেলার অভিযোগে চিকিৎসককে মারধর

--- ৯ জুলাই, ২০১৩

বরিশাল টুডে ॥ বরিশালে শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনায় অবহেলার অভিযোগে এক চিকিৎসককে মারধর করেছে মোটর মেকার শ্রমিকরা। সোমবার রাতে শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে শ্রমিকদের মারধরের শিকার হয়েছেন চিকিৎসক ফারুক আলম। তিনি শেবাচিম হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার। মৃত শ্রমিক কালাম খান (৩২) বরিশাল মোটর মেকার ইউনিয়নের সদস্য। তিনি ঝালকাঠী জেলার ষাটপাকিয়া এলাকার রশিদ খানের ছেলে।

কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ জানিয়েছে সাখাওয়াত হোসেন জানান,  বিকেল ৫টার দিকে কাজ করতে গিয়ে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ঠ হয় মোটর শ্রমিক কালাম খান। তাৎক্ষনিক তাকে শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এর কয়েক ঘন্টা পর মৃত্যু হয় কালামের। কালামের মৃত্যু জন্য চিকিৎসকদের অবহেলার অভিযোগ এনে এক চিকিৎসককে মারধর করে শ্রমিকরা। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

এব্যাপারে শেবাচিম হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক রেজাউল কবির জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার পরপরই তাকে (কালাম) প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে নির্দিষ্ট ওয়ার্ডে প্রেরন করেন ডা. ফারুক আলম। ওয়ার্ডে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। তবে মোটর মেকার শ্রমিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক সফিকুল ইসলামের দাবি, কালামকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ২ থেকে আড়াই ঘন্টা বিলম্বে চিকিৎসক তাকে দেখতে আসেন। একারনের তার মৃত্যু হয়েছে।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

এপ্রিল ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« মার্চ    
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০