September 15, 2019

সিজার অপারেশন পিছিয়ে ভোট দিয়ে আলোচনায় টিউলিপ

--- ১৬ জানুয়ারি, ২০১৯

সন্তান জন্মদান দুইদিন পিছিয়ে হুইলচেয়ারে পার্লামেন্টে এসে ব্রেক্সিট ইস্যুতে ভোট দেন বিরোধী লেবার পার্টির এমপি টিউলিপ সিদ্দিক।

চিকিৎসকের পরামর্শ উপেক্ষা করে সন্তান জন্মদান দুইদিন পিছিয়ে ব্রেক্সিট ইস্যুতে পার্লামেন্টে ভোট দিলেন ব্রিটেনের বিরোধী লেবার পার্টির এমপি বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত টিউলিপ সিদ্দিক। এ নিয়ে তুমুল বিতর্ক উঠেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে।

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে মঙ্গলবার ব্রেক্সিটের ওপর ভোট অনুষ্ঠিত হয়। টিউলিপ সেখানে ব্রেক্সিটের বিপক্ষে ভোট দেন বলে মনে করা হচ্ছে। তিনি বাংলাদেশের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ কন্যা শেখ রেহানার মেয়ে ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাগ্নি।

বিষয়টি নিয়ে বিবিসিতে ‘গর্ভবতী এমপির ভোটদান প্রক্সি ভোট দেয়ার পদ্ধতি নিয়ে বিতর্ক তৈরি করেছে’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন গুরুত্ব সহকারে প্রকাশিত হয়। সেখানে ব্রিটিশ সংসদে অনুপস্থিত অবস্থায় ভোট দেয়ার পদ্ধতি না থাকার সমালোচনা করা হয়। ঝুঁকি নেয়ায় টিউলিপের সমালোচনা করেন অনেক ব্রিটিশ নাগরিক।

যুক্তরাজ্যের গার্ডিয়ান, ডেইলি মেইল, মেট্রোসহ প্রায় সব সংবাদমাধ্যমেও এ বিতর্ক নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করা হয়। এ বিষয়ে টুইটারে সমালোচনার জবাব দিয়েছেন টিউলিপ। তিনি জানান অন্য কোন উপায় না থাকায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি।

‘হ্যাম্পস্টেড ও কিলবার্নের মানুষকে সংসদে প্রতিনিধিত্ব করাই আমার দ্বায়িত্ব। আমি সেটি করেছি এবং করে যাবো।’ বলেন টিউলিপ।

চিকিৎসকের পরামর্শ ছিল সোম অথবা মঙ্গলবার সিজার করানোর। কিন্তু টিউলিপ সেই তারিখ বৃহস্পতিবারে পিছিয়ে দেন। সন্তানের জন্মদানের চেয়েও ইইউতে যুক্তরাজ্যের থাকাকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন তিনি।

এর আগে আরেক টুইটারে টিউলিপ বলেন, ‘আমার সন্তান চিকিৎসকের দেওয়া তারিখের এক বা দুইদিন পর পৃথিবীতে এলেও আমি খুশি যদি সে পৃথিবীতে যুক্তরাজ্য ও ইউরোপের মধ্যে শক্তিশালী সম্পর্ক থাকে।’

ফেইসবুকে আমরা