৩০ মিনিট পর ফটোকপি প্রশ্নে এসএসসি সাধারণ গণিত পরীক্ষা

ঢাকার গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি স্কুল কেন্দ্রে ইংলিশ ভার্সনের শিক্ষার্থীদের পুরাতন প্রশ্নপত্রে এসএসসি পরীক্ষা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। প্রায় ৩০ মিনিট পর শিক্ষার্থীরা নতুন প্রশ্নপত্র হাতে পায়। এ ঘটনায় পরীক্ষার্থীসহ অভিভাবকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

ইংলিশ ভার্সনের পরীক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, শনিবার তাদের সাধারণ গণিতের পরীক্ষা ছিল। নির্ধারিত সময়ে তারা কেন্দ্রে উপস্থিত হন। পরীক্ষা দেওয়ার সময় তারা দেখেন যে, ২০১৬ সালের সিলেবাসের প্রশ্নপত্র তাদের দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি কেন্দ্রে দায়িত্বরত শিক্ষকদের জানানো হলে প্রশ্নপত্র পরিবর্তন করে ২০১৯ সালের প্রশ্ন দেওয়া হয়। এসময় শিক্ষকরা পরীক্ষার্থীদের আশ্বস্ত করেন তাদের অতিরিক্ত সময় দেওয়া হবে। কিন্তু পরে আর সে সময় দেওয়া হয়নি। এতে করে ঠিকমত উত্তর করতে পারেননি পরীক্ষার্থী।

ওই কেন্দ্রে পরীক্ষা দেওয়া এক পরীক্ষার্থী বলেন, ১০০৬ নম্বর রুমে তাদের পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছিল। সেখানে তাদের পুরাতন প্রশ্নপত্র দেওয়া হয়। পরে সেটা পরিবর্তন করে নতুন প্রশ্নপত্র দেওয়া হয়। কিন্তু তাদের নষ্ট হওয়া ৩০ মিনিটের জন্য অতিরিক্ত সময় আর দেওয়া হয়নি। ফলে তারা প্রশ্নপত্রে চাওয়া সবগুলো উত্তর দিতে পারেনি। এতে কয়েকজন পরীক্ষার্থী কান্না শুরু করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক অভিভাবক বলেন, পরীক্ষার পর তার মেয়ে কাঁদতে কাঁদতে বলে, পর্যাপ্ত সময় না দেওয়ায় সে কাঙ্ক্ষিত উত্তর দিতে পারেনি। তাদের রুমের ইংলিশ ভার্সনের সব পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে এমনটি হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, দায়িত্বরত শিক্ষকরা নতুন প্রশ্নপত্র দিলে দেখা যায়, তাতে ৩, ৪ ও ৫ নম্বর প্রশ্নের বেশ কয়েকটি অংশ নেই।এরপর পরীক্ষার্থীদের ফটোকপি করা প্রশ্নপত্র দেওয়া হয়। এতে করে প্রায় ৩০ মিনিটের মত সময় নষ্ট হয় তাদের। এ জন্য অতিরিক্ত সময় দেওয়ার কথা থাকলে তা আর দেওয়া হয়নি।

এ বিষয়ে গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।