July 27, 2017

নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে চলছে রূপাতলী ওয়াটার টিটমেন্ট প্লান্টের কাজ

--- ৩ আগস্ট, ২০১৩

মামুনুর রশীদ নোমানী, বরিশাল : রূপাতলীর ওয়াটার টিটমেন্ট প্লান্টের কাজ নিন্মমানের সামগ্রী দিয়ে চলছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এলাকাবাসী প্রতিবাদ করলেও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেঘনা স্টাকচার ইঞ্জিনিয়ারি কোম্পানি লিমিটেড কোন ভ্রক্ষেপ করছেন না। বিধি অনুযায়ী কাজ না করায় ক্ষোভে ফুসে উঠেছে স্থানীয়রা। অভিযোগে জানা যায়, প্রায় ২০ কোটি টাকা ব্যায়ে দক্ষিণ রূপাতলী এলাকায় ওয়াটার টিটমেন্ট প্লান্টের কাজ পায় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেঘনা স্টাকচার ইঞ্জিনিয়ারি কোম্পানি লিমিটেড। সম্প্রতি তারা পাইলিংয়ের কাজ শুরু করেছে। এ কাজের জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে নিন্মমানের ইট, বালু, সিমেন্ট এবং পাথর।

অপরিচ্ছন্ন পাথর পরিস্কার না করেই কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। এতে কাজের গুনগত মান নষ্ট হচ্ছে বলেও এলাকাবাসী জানান। বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের রূপাতলী এলাকার বাসিন্দাদের বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ নিশ্চিত করার জন্য এ প্রকল্প হাতে নেওয়া হলেও শুরুতেই নিন্মমানের ইট, বালু ও পাথর ব্যবহার করেই কাজ করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এলাকার বাসিন্দারা। রূপাতলী এলাকার বাসিন্দা মো. শাহআলম জানান, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ওয়ার্ক অর্ডার অনুযায়ী কাজ করছেন না। যেখানে উন্নতমানের পাথর, ইট ও বালু ব্যবহার করা কথা রয়েছে, সেখানে তারা নিন্মমানের সামগ্রী ব্যবহার করছে।

এলাকার লোকজন এতে বাধা দিলে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে স্থানীয়দের হয়রানী করার চেষ্টা করছে। বরিশাল জনস্বাস্থ্য বিভাগের প্রকৌশলী মো. শাহআলম অবৈধভাবে কৌশলে এ কাজের অশিংদার থাকায় প্রভাবশালী ওই ঠিকাদার কারো কথায় কর্নপাত না করেই নিজের ইচ্ছেমত কাজ করছেন। আমরা বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ নিশ্চিত করার জন্য সঠিক পদ্ধতিতে কাজের দাবি জানাচ্ছি।স্থানীয় বাসিন্দা আবদুর রহিম জানান, একতো নিন্মমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ করা হচ্ছে, অন্যদিকে কাজের জন্য ব্যবহার করা নির্মান সামগ্রী আনার জন্য ট্রাক ব্যবহার করায় দক্ষিণ রূপাতলী খান সড়কটি বেহাল হয়ে পড়েছে। এ সড়ক দিয়ে এখন যাতায়াত করা কষ্ট হয়ে গেছে। সড়ক নষ্ট করে সাধারণ মানুষকে দুর্ভোগে ফেলে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নিজেদের পকেট ভারি করার চেষ্টা করছেন। আমরা অভিলম্বে বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানাচ্ছি। সরেজমিনে গিয়ে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার মো. সোলায়মানের সাথে কথা হয়। তিনি বলেন, কোন অনিয়ম হচ্ছে না। কাজ ওয়ার্ক অর্ডার অনুযায়ীই হচ্ছে।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

জুলাই ২০১৭
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুন    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১