July 22, 2017

৬ মাস শূন্য থাকার পর বিএম কলেজের অধ্যক্ষ’র চেয়ারে বসলেন ফজলুল হক

--- ১৫ আগস্ট, ২০১৩

today-bm-college

বরিশাল টুডে ॥ সরকারি বিএম (ব্রজমোহন) কলেজের অধ্যক্ষ পদ নিয়ে অপ্রীতিকর ঘটনার ৬ মাস পর নতুন অধ্যক্ষ হিসেবে সেখানে যোগ দিয়েছেন সরকারী সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের অধ্যক্ষ ফজলুল হক।

অপ্রীতিকর ঘটনার সময় ওএসডি করা দু’ অধ্যক্ষের মধ্যে প্রফেসর শংকর চন্দ্র দত্তকে সরকারী সৈয়দ হাতেম আলী কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। প্রফেসর ননী গোপাল দাস এখনো ওএসডি রয়েছেন। আর্থিক অনিয়মের কারনে গত ৩০ জানুয়ারী অধ্যক্ষ ননী গোপাল দাসকে খুলনার বিএল কলেজের বিভাগীয় প্রধান  ও বিএম কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে চাখার ফজলুল কলেজের অধ্যক্ষ শংকর দত্তকে বদলী করা হয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এ আদেশ পাওয়ার পরও অধ্যক্ষ ননী গোপাল দাস বিএম কলেজ ছাড়তে রাজি হননি।

৪ ফেব্র“য়ারী অধ্যক্ষ ননী গোপাল দাসকে দায়িত্ব হস্তান্তরের জন্য পুনরায় চিঠি দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। কিন্তু অধ্যক্ষ ননী গোপাল দাস ছাত্রলীগের একাংশের সহযোগিতায় পুরো ক্যাম্পাস দখলে রাখে। ননী গোপাল দাস কলেজে না আসলেও তার অনুসারী ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা নতুন অধ্যক্ষকে প্রতিহত করার ঘোষণা দেয়। এরই মাঝে ১২ ফেব্র“য়ারী শংকর দত্ত বিএম কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করতে গেলে তার উপর ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা প্রকাশ্যে বর্বরোচিত হামলা চালায়।

এ হামলার সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর শিক্ষা মন্ত্রণালয় দু’ অধ্যক্ষকে ওএসডি করেন। সেই থেকে টানা ৬ মাস অধ্যক্ষ’র দায়িত্ব পালন করছেন উপাধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম। অধ্যক্ষ’র চেয়ার নিয়ে জল্পনা-কল্পনার শেষে মঙ্গলবার শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে হাতেম আলী কলেজের অধ্যক্ষ ফজলুল হককে বিএম কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে বদলীর আদেশ দেন।

একই সাথে হাতেম আলী কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে শংকর চন্দ্র দত্তকে যোগদান করার আদেশ দেয়া হয়। আদেশ পেয়ে অধ্যক্ষ ফজলুল হক বুধবার দুপুরে বিএম কলেজের যোগদান করেন। কলেজ ক্যাম্পাসে তাকে শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী সহ শিক্ষার্থীরা অভিনন্দন জানান।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

জুলাই ২০১৭
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুন    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১