July 22, 2017

বরিশালে শিশু সন্তান হত্যার দায়ে বাবার যাবজ্জীবন

--- ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৩

বরিশাল টুডে ॥ বরিশালে ১৪ মাসের শিশু সন্তান তামান্নাকে হত্যার দায়ে বাবা জসিমউদ্দিনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া তাকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ছয় মাসের দণ্ডাদেশ দেন আদালত। মঙ্গলবার দুপুর একটার দিকে আসামির উপস্থিতিতে প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মতিয়ার রহমান এই আদেশ দেন।

পাষণ্ড বাবা দণ্ডিত জসিমউদ্দিন সদর উপজেলা লাহারহাটের নরকাঠী গ্রামের বাসিন্দা মকবুল হোসেনের ছেলে। আদালতের বেঞ্চ সহকারী (পেশকার) মো. জাকির হোসেন মামলার নথির বরাত দিয়ে জানান, ২০০৬ সালে বাকেরগঞ্জ দুধল এলাকার এলিজা বেগমের সঙ্গে আসামি জসিমের বিয়ে হয়। এরপর তাদের সংসারে জমজ ছেলে-মেয়ের জন্ম হয়।

কিন্তু বিয়ের পর থেকেই জসিম যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে চাপ প্রয়োগ করায় এক পর্যায়ে স্ত্রী তার বাবার বাড়ি চলে যান। দীর্ঘদিন সেখানে থাকার পর লিখিত চুক্তির মাধ্যমে স্ত্রীকে ফিরিয়ে আনেন তিনি। পেশকার আরও জানান, ২০০৯ সালের ১১ নভেম্বর তামান্নাকে রেখে ঘরের বাইরে যান জসিমের স্ত্রী এলিজা। ফিরে এসে মেয়েকে কোলে নিয়ে তার নাক থেকে রক্ত ঝড়তে দেখেন এলিজা।

দ্রুত তামান্নাকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওই দিনই এলিজা বাদী হয়ে স্বামী জসিমকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। চড়ের আঘাতে শিশু তামান্নার মৃত্যু হয় বলে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। পরে ওই বছরের ৩১ ডিসেম্বর তদন্তকারী কর্মকর্তা জসিমকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট প্রদান করেন। ১১ জনের সাক্ষ্য শেষে দীর্ঘদিন মামলা চলার পর ৩ সেপ্টেম্বর আদালত হত্যাকারী বাবার বিরুদ্ধে এই সাজার নির্দেশ দেন।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

জুলাই ২০১৭
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুন    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১