July 23, 2017

বাবুগঞ্জে পুলিশের সাথে ১৮ দলের নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষ ॥ গুলি বর্ষন

--- ২৪ নভেম্বর, ২০১৩

বরিশাল টুডে ॥ বাবুগঞ্জে বিএনপি জামায়াত সহ ১৮দলীয় জোটের বিক্ষোভ মিছিল কে কেন্দ্র করে পুলিশের সাথে সংর্ঘষ হয়েছে। এ সময় পুলিশ বেধড়ক লাঠিচার্জ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে ২০ রাউন্ড গুলিবর্ষন করা হয়েছে। এতে ৩ পুলিশ ও  উপজেলা বিএনপি সভাপতি ইসরাত হোসেন কচি সহ প্রায় ২০ জন আহত হয়েছে। পুলিশ ৮জনকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করেছে। প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্র জানায় – রবিবার বিকালে বাবুগঞ্জ উপজেলা বিএনপি – জামায়াত সহ ১৮দলীয় জোটের উদ্দ্যোগে বিমানবন্দর থানার স্টীল ব্রীজের পশ্বিম পাড় এলাকা দিয়ে বিক্ষোভ মিছিল সহকারে বাবুগঞ্জ থানা এলাকায় প্রবেশ করে। এ সময় বাবুগঞ্জ থানা পুলিশ মিছিলে বাধাঁ দিলে ১৮দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হলে বাবুগঞ্জ থানার পুলিশের সাথে যোগদেয় বিমানবন্দর থানা পুলিশ। উভয় থানার পুলিশ মিলে মিছিলকারীদের  বেদড়ক লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার চেস্টা করে ব্যর্থ হয় । পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে বিমানবন্দর থানা পুলিশ ২০রাউন্ড শর্টগানের গুলিবর্ষন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করে। কিন্ত  ১৮দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা বরিশাল-মীরগঞ্জ সড়কের ক্ষুদ্রকাঠী এলাকায় গাছ ফেলে সড়ক অবরোধ করে। পরে উভয় থানা পুলিশের সাথে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে অবরোধকারীদের ছত্র ভঙ্গ করে দেয়। 

পুলিশ সড়ক থেকে গাছ সরিয়ে গাড়ী চলাচল স্বাভাবিক করে দিয়েছে। আহতরা হলেন বাবুগঞ্জ থানার এস আই আমান উল্লাহ,এ এস আই আঃ রব,বিমানবন্দর থানার এস আই আঃ হালিম,এ ছাড়াও গুলিবিদ্ধ হয়েছে বাবুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি ইসরত হোসেন কচি তালুকদার, যুবদলের সহ-সভাপতি এনামূল হক,তরুনদলের সভাপতি আরিফুল ইসলাম রবিন সহ ২০জন। আহতদের বিভিন্ন স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় বাবুগঞ্জ ও বিমানবন্দর থানা পুলিশ তাৎক্ষনিকভাবে অভিযান চালিয়ে ৮জনকে আটক করেছে। আটককৃতরা হচ্ছে বিমানবন্দর থানা এলাকায় বাবুগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মদলের আহবায়ক সেলিম সরদার,তরুন দলের রনি, শাহাদৎ হোসেন, মারুফ, বাবুগঞ্জ থানায় ডাক্তার আঃ রহিম, মিজানূর রহমান, সাইফুল ইসলাম, ইমরান হোসেন। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে বাবুগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোঃ শাহআলম জানান,বিএনপি জামায়াতের নেতাকর্মীরা পুলিশের গাঁয়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে পুলিশ এ্যাকশনে যায় এবং তাৎক্ষনিকভাবে অভিযান চালিয়ে ৪জনকে আটক করা হয়েছে। বিমানবন্দর থানার সেকেন্ড অফিসার এস আই আবুল খায়ের জানান, পুলিশের প্রতি ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে ২০রাউন্ড শর্টগাটের গুলিবর্ষন করা হয়েছে এবং ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ৪ জনকে আটক করেছে।  উভয় থানায় আটককৃত ৪ জনকে করে ৮ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে পুলিশের কাজে বাধা প্রদানের মামলা হবে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

জুলাই ২০১৭
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুন    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১