July 22, 2017

বরিশালে টেন্ডারবাজদের হাতে জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা লাঞ্ছিত

--- ১২ জানুয়ারি, ২০১৪

zila-parisad-barisal

৩ কোটি টাকার ঠিকাদারী কাজ পেতে মরিয়া হয়ে উঠা এক দল টেন্ডারবাজের হাতে রবিবার জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা লাঞ্চিত হয়েছেন। এসময় প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ছাড়াও প্রকৌশলী ও অপর কর্মকর্তাদের অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে মারধরে উদ্যত্ত হয় ।

জেলা পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, নগরীর তিনটি স্থানে ৩ টি মার্কেট করার জন্য গত  বছরের  সেপ্টেম্বরে প্রায় ৩ কোটি টাকার  দরপত্র আহবান করা হয়। গত ২৮ অক্টোবর ঐ কাজটি পেয়ে যান সিটি কর্পোরেশনের বিএনপি দলীয় প্যানেল মেয়র কে এম শহিদুল্লাহ। এ খবরে ক্ষুদ্ধ হন টেন্ডারে অংশ গ্রহনকারী আওয়ামী লীগ দলীয় অপর প্যানেল মেয়র মোশারফ আলী খান বাদশা সহ শাসক দলের অপর নেতারা।

তারা রবিবার বেলা ১২টায় জেলা পরিষদে হাজির হয়ে নির্বাহী কর্মকর্তাকে লাঞ্জিত করে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় প্রকৌশলী সহ অপর কর্মকর্তাদের তারা মারধরে উদ্যত্ত হয়। টেন্ডারবাজদের সাথে যাওয়া ২৫/৩০ জনের ক্যাডার বাহিনী নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রায় ৩ ঘন্টা তার কক্ষে অবরুদ্ধে করে রাখে।

এক পর্যায়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের পরিচালক ( বরিশাল বিভাগ)  প্রনয় কান্তি বিশ্বাস ( যুগ্ম সচিব) জেলা পরিষদে অডিট করতে এসে এ অবস্থা দেখতে পান। পরে তিনি টেন্ডারে কোন অনিয়ম হলে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়ে টেন্ডারবাজদের জেলা পরিষদ থেকে বিদায় করেন।

জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মকবুল হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান-টেন্ডারে কোন অনিয়ম হয়নি। যারা গতকাল জেলা পরিষদে এসে অপ্রতিকর ঘটনা ঘটিয়েছেন তাদের দাখিল করা দরপত্রের সাথে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ছিল না।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

জুলাই ২০১৭
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুন    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১