July 22, 2017

এবার খাল দখল করে মার্কেট নির্মানের অভিযোগ মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে

--- ৩১ জানুয়ারি, ২০১৪

বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি জসিমউদ্দিনের বিরুদ্ধে এবার খাল দখল করে মার্কেট নির্মানের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বর্তমানে নগরীর সাগরদী বাজার সংলগ্ন খালের একটি অংশ দখল করে সেখানে তিনটি স্টল নির্মানের কাজ চলছে। সাগরদী বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুরঞ্জন সাহা জানিয়েছেন, ছাত্রলীগ নেতা জসিম ভাড়া দেয়ার উদ্দেশ্যে স্টল তিনটি নির্মান করছেন। আওয়ামী লীগ সমর্থিত স্থানীয় ওর্য়াড কাউন্সিলর রেজভী চৌধুরী জানান, পূর্বে খালের পাড় ঘেষে চারটি দোকান ছিল্।

১৯৭৫ সালে দোকান চারটি আব্দুল আজিজ হাওলাদার, বলাই সূর্য্যপাল ও হোসেন নামে তিনজনকে লিজ দেয়া হয়েছিল। দীর্ঘদিন তাদের দখলে থাকার পর বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি শওকত হোসেন হিরন মেয়র থাকাকালিন সময়ে সাগরদী বাজার উন্নয়নের নামে দোকান চারটি ভেঙ্গে ফেলা হয়। তবে ওই সময়ে পূর্বের মালিকদের নতুন করে স্টল নির্মান করে তা বরাদ্দ দেয়ার আশ্বাস দেয়া হয়েছিল। রেজভী চৌধূরী জানান, উন্নয়ন কাজ শেষ হওয়ার পর দোকান চারটি আগের মালিকদের কাছে লিজ না দিয়ে ওই চারটি দোকানের জমিসহ খালের মধ্যের আরো ২০ ফুট জমি তৎকালীন মেয়র শওকত হোসেন হিরনের ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি জসিমের ভগ্নিপতি এক যুবলীগ নেতার কাছে লিজ দেয় বরিশাল সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষনার পর তড়িঘড়ি করে স্টল নির্মান কাজ শুরু করে ছাত্রলীগ নেতা জসিম। স্থানীয়রা আরো জানান, খাল দখল করে স্টল নির্মানের বিষয়ে বরিশাল সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করা হয়েছিল। কিন্তু এব্যাপারে তারা কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেননি। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে বরিশাল সিটি করপোরেশনের নির্বাহী প্রকৌশলী হুমায়ন কবির জানান, অভিযোগ পেয়ে খাল দখল বন্ধে নোটিশ প্রদান করা হয়েছে। তার এ দাবির সাথে ভিন্নমত পোষন করে স্থানীয় কাউন্সিলর রেজভী চৌধুরী জানিয়েছেন, খালে বাঁধ দেয়া হয়ে গেছে, মেঝেও করা শেষ। যেকোন সময় ঢালাই দেয়া হবে।

এ অবস্থায় শুধু নোটিশ দিয়ে খাল দখল বন্ধ করা যাবেনা। এব্যাপারে তড়িতগতিতে ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন বলে তিনি মনে করেন। খাল ও জলাশয় পুনরুদ্ধারের ব্যাপারে কাজ করা উন্নয়ন কর্মী এস এম শাহজাদা বলেন, বরিশালে এক সময় ৬০০ পুকুর জলাশয় ও ২২ টি খাল ছিলো। কিন্তু নির্বিচারে দখল ও ভরাটের ফলে বরিশাল নগরীতে এখন মাত্র ৪ টি খাল রয়েছে। সাগরদী খাল দখল বন্ধে ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অবিলম্বে বরিশাল সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষকে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য আহবান জানিয়েছেন উন্নয়ন কর্মী শাহজাদা। এদিকে খাল দখলের মাধ্যমে স্টল নির্মানের বিষয়ে মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি জসিমউদ্দিন দাবি করেন, বরিশাল সিটি করপোরেশন থেকে লিজ পেয়ে দোকান মালিকরা ভাঙ্গন রোধে খালের মাঝে বাঁধ দিচ্ছেন বলে তিনি জানতে পেরেছেন। এ ব্যাপারে তার কোন সংশ্লিষ্টতা নেই বলেও দাবি করেন তিনি।  

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

জুলাই ২০১৭
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুন    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১