July 22, 2017

এমপি হিরন গুরুতর অসুস্থ ॥ সংকটাপন্ন অবস্থায় ঢাকায় পেরণ

--- ২৩ মার্চ, ২০১৪

mp-hiron

বরিশালের জনপ্রিয় সাবেক সিটি মেয়র, মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বরিশাল -৫ আসনের সংসদ সদস্য শওকত হোসেন হিরণকে সংকটাপন্ন অবস্থায় ঢাকায় প্রেরন করা হয়েছে। শনিবার রাতে মস্তিস্কে রক্তক্ষরন জনিত কারনে অসুস্থ হয়ে মেঝেতে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পান। অচেতন অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা চিকিৎসা মহা বিদ্যালয়ে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তার মস্তিস্কে অভ্যন্তরিন রক্তক্ষরন হয়েছে। রাত পৌনে ১টায় জরুরী ভিত্তিতে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়া হয়েছে।  আবহাওয়া প্রতিকুল থাকায় অনেক চেষ্টা করেও এয়ার এ্যাম্বুলেন্সে তাকে ঢাকা পাঠানো সম্ভব হয়নি। তবে রাতেই সড়ক পথে এ্যাম্বুলেন্স যোগে ঢাকায় নেয়া হয়েছে। এদিকে হিরনের অসুস্থতার সংবাদে দলমত নির্বিশেষে শতশত মানুষ হাসপাতালে ছুটে যান। হাসপাতালে ছুটে যান শিল্প মন্ত্রী আমির হোসেন আমু, বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এ্যাড. তালুকদার মোঃ ইউনুস-এমপি, সিটি মেয়র আহসান হাবিব কামাল, ব্যরিস্টার শাহজাহান ওমর (বীর উত্তম), পুলিশ কমিশনার মোঃ সামসুদ্দিন, জেলা প্রশাসক মোঃ শহীদুল আলম, বরিশাল প্রেসক্লাব সভাপতি কাজী আবুল কালাম আজাদ, সাধারন সম্পাদক পুলক চ্যাটার্জী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক লিটন বাশার, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু সহ অসংখ্য নেতাকর্মী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শওকত হোসেন হিরণ-এমপি বাসা থেকে বরিশাল ক্লাবে যান। সেখানে উপজেলা নির্বাচনের বিষয়ে স্থানীয় নেতা-কর্মীদের সাথে আলোচনা করেন। রাত পৌনে ১০ টার দিকে আলোচনা শেষে নলছিটি উপজেলায় উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন তিনি। এ সময় ক্লাবের মধ্যে স্ট্রোক করে মেঝেতে পড়ে যান। এতে তার মাথায় গুরুতর আঘাত প্রাপ্ত হয়। তাৎক্ষনিক ভাবে ক্লাব স্টাফ সহ অন্যান্য নেতারা তাকে উদ্ধার করে রাত ১০ টা ১০ মিনিটে শেবাচিম হাসপাতালের করনারী কেয়ার ইউনিট (সিসিইউ)তে ভর্তি করে।

কার্ডিওলজী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মেডিকেল কলেজ অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ রনজিৎ চন্দ্র খাঁ জানান, স্ট্রোকের থেকেও মাথার আঘাতটি গুরুতর। তিনি বলেন, সিটি স্ক্যান রিপোর্ট অনুযায়ী তার মস্তিস্কের অভ্যন্তরে রক্তক্ষরন হয়েছে। এছাড়া পূর্বে তার হার্টে রিং বসানো রয়েছে। বর্তমানে তার অবস্থা সংকটাপন্ন বলেও জানিয়েছেন ডাঃ রনজিৎ চন্দ্র খাঁ। তিনি আরো বলেন, শেবাচিম হাসপাতালে সার্জারী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যপক ডাঃ এএসএএম শরফুজ্জামান রুবেল, মেডিসিন বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাঃ গোলাম মাহমুদ সেলিম, ডাঃ জহিরুল হক মানিক, ডাঃ মোঃ জাকির হোসেন, ডাঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন, হাসপাতাল পরিচালক ডাঃ মুঃ কামরুল হাসান সেলিম সহ আরো বেশ কয়েকজন চিকিৎসক এর সমন্বয়ে টিম গঠন করে শওকত হোসেন হিরণকে চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার সিএমএইচ’এ প্রেরন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

জুলাই ২০১৭
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুন    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১