July 22, 2017

অপহারকারীদের হাত থেকে বাচতে ব্যবসায়ীর কীর্তনখোলা ঝাপ

--- ৮ এপ্রিল, ২০১৪

অপহারনকারীদের হাত থেকে বাচতে কীর্তনখোলা নদীতে ঝাপ দিয়ে বেচে গেলেও মুমুর্ষ অবস্থায় হাসপাতালে  চিকিৎসা নিচ্ছেন ব্যবসায়ী লক্ষণ বাড়ৈ(৩২)। তিনি পটুয়াখালীর কালাগাছিয়া গ্রামের বাসিন্দা তৃপ্ত বাড়ৈ’র পূত্র এবং পাটখড়ি ব্যবসায়ী।

রাত ১১ টার দিকে তাকে কীর্তনখোলা নদী সংলগ্ন ত্রিস গোডাউন এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করে কোতোয়ারী থানা পুলিমের এ.এস.আই ফারুক হোসেন। কোতয়ালী থানার এএসআই ফারুক হোসেন অসুস্থ্য ব্যবসায়ীর বরাত দিয়ে জানান, গত রবিবার পাটখড়ি ব্যবসায়ী লক্ষন বাড়ৈকে অফহরন করে মাইক্রোবাসে বরিশালে নিয়ে আসে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা। অপহারণকারীরা তার নিকট ১০ লাখ টাকা মুক্তিপন ও দাবী করেছে।

সোমবার রাতে কীর্তনখোলা নদী সংলগ্ন ত্রিস গোডাউন এলাকা থেকে একটি ট্রলার যোগে তাকে অপহারনকারীরা কোথাও নিয়ে যেতে ছিলো লক্ষনকে। এ সময় তিনি নদীতে ঝাপ দেয়। এবং বাচাও বাচাও করে চিৎকার করতে থাকে। পার্শবর্তীস্থানে থাকা কোতোয়ালী থানা পুলিশের একটি টহলদল ঘটনাস্থলে যায় এবং লক্ষনকে উদ্ধার করে। কিন্তু তার আগেই অপহরন কারীরা পালিয়ে যায়।

পুলিশ তাকে উদ্ধার করে শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসে। তার অবস্থা আশংকা জনক বলে জানিয়েছেন জরুরী বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডাঃ রিয়াজুল ইসলাম। এ.এস.আই ফারুক হোসেন জানান, লক্ষন বর্তমানে অসুস্থ রয়েছে।সুস্থ হলে সঠিক সবকিছু জানা যাবে। নএদিকে অপহরনকারীদের আটকের লক্ষ্যে রাতে অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব ও পুলিশ।

ফেইসবুকে আমরা

পুরনো সংখ্যা

জুলাই ২০১৭
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুন    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১